Home » স্বাগত ইংরেজি নববর্ষ-২০২৩ -প্রফেসর মোঃ হাসানুজ্জামান মালেক

স্বাগত ইংরেজি নববর্ষ-২০২৩ -প্রফেসর মোঃ হাসানুজ্জামান মালেক

কর্তৃক Md. Sohel Rana
537 ভিউস

নতুন বছরে শুভেচ্ছা, উন্নয়নের আলোচনা।

স্বাগত ইংরেজি নববর্ষ-২০২৩
-প্রফেসর মোঃ হাসানুজ্জামান মালেক; মেহেরপুর।

স্বাগত নববর্ষ-২০২৩
আমাদের একটা সাধারণ প্রবণতা হলো এ কথা বলা যে, আগেই ভাল ছিলাম। দাদা-দাদিরা নাতি-নাতনিদের বলেন, ‘তোরা আর কী পেলি, কী খেলি, কী দেখলি! পেয়েছিলাম আমরা, খেয়েছিলাম আমরা, দেখেছিলাম আমরা! আমাদের সময়ে! অনেকে তো পাকিস্তান আমলেই ফিরে যেতে চান।
কিন্তু পাকিস্তান আমলে আমরা কী দেখেছি!  স্বাধীনতার ৫২ বছর ধরে সময় ক্রমাগতভাবে ভালো আসছে। অন্তত বাংলাদেশে। আমাদের ছোটবেলায় দেখেছি, মানুষ আষাঢ় মাসে না খেয়ে থাকত, বেশির ভাগ মানুষের পায়ে জুতা বা স্যান্ডেল থাকত না। আমরা ছোটবেলায় খালি পায়েও স্কুলে গেছি। আমাদের বন্ধুদের অনেকেই স্কুলে গেছে লুঙ্গি পরে। এখন আমি অজপাড়াগাঁয়ে শীতের সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দেখি, একজন তরুণ-যুবাও নেই, যার পরনে লুঙ্গি আছে, সবাই জিনসের প্যান্ট পরা। সবার হাতে মুঠোফোন।

নববর্ষ ২০২৩সালের শুভেচ্ছা

২০২০-২০২১ সালে করোনায় তো বাংলাদেশের শেষ হয়ে যাওয়ার কথাই ছিল। ঘনবসতির দেশ।  করোনার কালে রাস্তায় রাস্তায় লাশ পড়ে থাকবে, এই ছিল আশঙ্কা। কিন্তু সে রকম ঘটতে আমরা দেখেছি নিউইয়র্কে, শহর বিরান হতে দেখেছি স্পেনে, ইতালিতে। আবার রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ও বিশ্ব অর্থনীতির মন্দা, তেলের মূল্যবৃদ্ধি প্রভৃতি সংকটকে মোকাবেলা করে  এগিয়ে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। অনেক বলেছেন শ্রীলংকা হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। কিন্তু হয়নি।  আমরা টিকে গেলাম। শুধু তাই নয়, ২০২২ এ পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল প্রভৃতি বাংলাদেশকে নিয়ে গেছে এক অনন্য উচ্চতায়। আমরা মেহেরপুরে কী দেখছি! আমাদের প্রিয় মন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে দিনে দিনে এগিয়ে যাচ্ছে মেহেরপুর।

গতস্য শোচনা নাস্তি। অতীতকে নিয়ে অনুশোচনা করতে নেই। ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই জ্ঞানীর কাজ—‘ভবিষ্যতের মানুষ’ প্রবন্ধে লিখে গেছেন ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ। যে দশটা কারণে আপনি ২০২৩ নিয়ে আশাবাদী হতে পারেন, তার একটা তালিকা প্রণয়ন করেছেন  প্রখ্যাত সাহিত্যিক ও প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আনিসুল হক। তিনি লিখেছেন-
১. ২০২১ সালের তুলনায় বাংলাদেশ থেকে অভিবাসী কর্মী ২০২২ সালে বেড়েছে, যদিও রেমিট্যান্স কমেছে। ব্যাংকিং খাতে ডলারের দাম বাড়ানোর পর রেমিট্যান্স আবার বাড়তে শুরু করেছে। কাজেই ২০২৩ সালে রেমিট্যান্স বাড়বে বলে আশা করা যায়।
২. পোশাকশিল্পসহ  খাতে রপ্তানি আয় বাড়তে পারে।
৩. ২০২৪ সালে নির্বাচন হবে। ফলে সরকারকে জনবান্ধব কর্মসূচি দিতেই হবে। (বিরোধী দলকেও  জনবান্ধব হতে হবে)। কাজেই জনগণের জন্য ২০২৩ হবে তুলনামূলকভাবে স্বাচ্ছন্দ্যময়।
৪. ২০২৩ সালে বিশ্বকাপ ক্রিকেট (ওডিআই) হবে ভারতে। সম্প্রতি আমরা ওডিআইতে সিরিজ জিতেছি ভারতের বিরুদ্ধে। এক দিনের ম্যাচে বাংলাদেশ ধারাবাহিকভাবে ভালো করছে। ২০২৩ সালে বিশ্বকাপ ক্রিকেটে খুব ভালো ফল আমরা আশা করতেই পারি।
৫. ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ ২০২৩ সালে থেমে যেতে পারে। নিদেনপক্ষে একটা যুদ্ধবিরতি সূচিত হতে পারে। তা না হলেও ইউরোপ-আমেরিকার মূল্যস্ফীতি সামলাতেও একটা অর্থনৈতিক সমাধানে পৃথিবীকে আসতেই হবে।
৬. ক্যানসারের টিকা আবিষ্কৃত হতে পারে।
৭. আণবিক ফিউশন করে সবুজ জ্বালানির পথ উন্মোচিত হয়েছে। বিনিয়োগ আসছে এই ক্ষেত্রে। বিকল্প সবুজ জ্বালানি এসে গেলে পৃথিবীর চেহারাই পাল্টে যাবে। এটা আসতে সময় নেবে। তবে সবুজ জ্বালানির জন্য গবেষণা ও বিনিয়োগ বাড়ছেই।
৮. যেভাবে আশঙ্কা করা হচ্ছে, আসলে রোবট মানুষের চাকরি খাবে না। বরং মানুষের জীবনকে সহজ করবে।
৯. বৈদ্যুতিক উড়োজাহাজের যুগ এসে যাচ্ছে।
১০. বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের শক্তি। তারা এ দেশকে ফল, মাছ, দুধ, সবজি উৎপাদনে চ্যাম্পিয়ন করে রেখেছেন। শেষ পর্যন্ত তাদের শক্তিতেই ২০২৩ সালের মন্দা ও মঙ্গা বাংলাদেশকে কবজা করতে পারবে না।
কাজেই হতাশা নয়, আসুন আশাবাদী হয়েই আমরা ২০২৩ কে স্বাগত জানাই।

-লেখকঃ প্রফেসর মোঃ হাসানুজ্জামান মালেক; সভাপতি বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ, মেহেরপুর জেলা শাখা।

মেহেরপুর কাথুলী রোড walton শোরুমে, ওয়ালটনের সকল পণ্য সুলভ মূল্যে বিক্রয় করা হয়। ওয়ালটন ফ্রিজ, ফ্যান, রাইস কুকার, প্রেসার কুকার, সহ অনেক পণ্য পাওয়া যাচ্ছে। যোগাযোগের ঠিকানা, মেহেরপুর কাথুলি রোড, মোবাইল নাম্বার ০১৪০৩২৫৭৭৭০- ০১৩০৫৪২৪৬২০

০ মন্তব্য
0

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন