Home » মেহেরপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের ফেনসিডিল রাখার দায়ে ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

মেহেরপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের ফেনসিডিল রাখার দায়ে ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

কর্তৃক m4BfLuMO2yLhlamiz
426 ভিউস

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৯/০১/২৩
মেহেরপুর জেলা দায়রা জজ আদালত
ফেনসিডিল রাখার অভিযোগে ২ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। গতকাল জনকীর্ণ আদালত মেহেরপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোঃ শহীদুল্লাহ এ রায় প্রদান করেন । সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা মেহেরপুর সদর উপজেলার বামন পাড়া গ্রামের মতি মল্লিকের ছেলে মামুন মল্লিক এবং টেংরামারী গ্রামের ইজালের ছেলে রবিউল ইসলাম। আসামিগণ মেহেরপুর জেলা। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মেহেরপুর জেলা ডিবির এসআই মোস্তফা শওকত জামান এর নেতৃত্বে এএসআই জসিম, মাহতাব উদ্দিন ,ইব্রাহিম বিশ্বাস সহ ডিবি পুলিশের একটি দল মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলার সাহেবপুর বাজার এলাকা থেকে সবজি বোঝাই একটি মিনি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো -ড-১৪-২৩০৬) তল্লাশি চালিয়ে ৮০০ বোতল ফেন্সিটির উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯(১)টেবিলের ক্রমিক নং (খ)/১৯(৪)ধারায় মেহেরপুর সদর থানায় একটি মামলা আদায় করেন।যার মামলা নং-৭। সেশন কেস নং-২৬৬/২০১৯। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রাথমিক তদন্ত শেষ করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় মোট ১০ জন সাক্ষী তাদের সাক্ষ্য প্রদান করেন। এতে আসামী মামুন মল্লিক এবং রবিউল ইসলাম দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাদের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড। ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা। অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদ্ডাদেশ দেন।
মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে পাবলিক প্রসিকিউটর পল্লব ভট্টাচার্য। এবং আসামী পক্ষে অ্যাডভোকেট খন্দকার একরামুল হক হীরা ও ইয়ারুল ইসলাম কৌশলী ছিলেন। আসামিগণের আত্মীয়রা সাংবাদিকদের বলেন উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

মেহেরপুর কাথুলী রোড walton শোরুমে, ওয়ালটনের সকল পণ্য সুলভ মূল্যে বিক্রয় করা হয়। ওয়ালটন ফ্রিজ, ফ্যান, রাইস কুকার, প্রেসার কুকার, সহ অনেক পণ্য পাওয়া যাচ্ছে। যোগাযোগের ঠিকানা, মেহেরপুর কাথুলি রোড, মোবাইল নাম্বার ০১৪০৩২৫৭৭৭০- ০১৩০৫৪২৪৬২০

০ মন্তব্য
0

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন