Home » ইরানে বিক্ষোভকারীদের ফাঁসির দাবি সরকারপন্থিদের

ইরানে বিক্ষোভকারীদের ফাঁসির দাবি সরকারপন্থিদের

কর্তৃক m4BfLuMO2yLhlamiz
506 ভিউস

পুলিশ হেফাজতে মাহসা আমিনির মৃত্যুর পর যখন বিক্ষোভে উত্তাল পুরো ইরান, ঠিক তখনই পাল্টা কর্মসূচি শুরু করেছে দেশটির সরকারপন্থিরা। শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাস্তায় জড়ো হয়ে হিজাব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারীদের ফাঁসি দেওয়ার দাবি তোলেন তারা। সরকারবিরোধীরা মাহসা আমিনির মৃত্যুকে ঘিরে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বলেও দাবি তাদের। এদিকে মাহসার মৃত্যুর বিচার দাবিতে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে দেশটির অন্তত ৫০ শহরে। খবর রয়টার্স।

একজন সরকারপন্থি বলেন, মাহসা আমিনির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে সরকারবিরোধীরা দেশকে অস্থিতিশীল করতে চাইছে। কিন্তু আমরা তা হতে দেব না। যেভাবেই হোক প্রতিবাদ আমরা করবই।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত বিভিন্ন ফুটেজে দেখা গেছে, বিক্ষোভকারীরা স্লোগান দিচ্ছেন কোরআন অবমাননাকারীদের অবশ্যই ফাঁসি দিতে হবে।

শুক্রবার ইরানের গোয়েন্দামন্ত্রী মাহমুদ আলাভি হুঁশিয়ারি জানিয়ে বলেছেন, দেশদ্রোহীরা ধর্মীয় মূল্যবোধকে পরাজিত করতে চাইছে।

এদিকে মাহসার মৃত্যুর প্রতিবাদে এখনো উত্তাল ইরান। শুক্রবারও ন্যায়বিচার দাবি করে দেশটির অন্তত ৫০টি শহরে বিক্ষোভ করেছে হাজার হাজার মানুষ। অনেক সরকারি ভবন এবং পুলিশ স্টেশনে আগুন লাগানোর খবর জানিয়েছে সরকার। এক সপ্তাহ ধরে চলা এ বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন হতাহতের খবর পাওয়া গেছে। এ ছাড়া আটক করা হয়েছে অন্তত এক হাজার বিক্ষোভকারীকে।

তবে হিজাব আইনের বিরোধিতা ও মাহসা আমিনির হত্যকাণ্ডের বিচার দাবিতে চলমান বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীদের সতর্ক করেছে ইরানের সেনাবাহিনী। আন্দোলন অব্যাহত থাকায় মাঠে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছে তারা।

অন্যদিকে বিক্ষোভকারীদের ওপর দমনপীড়ন না চালাতে আগে থেকেই সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। শুক্রবার এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তেনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক।

গত সপ্তাহে ঠিকমতো হিজাব না পরার অভিযোগে ২২ বছর বয়সী মাহসা আমিনিকে গ্রেফতার করে ইরানের পুলিশ। পরে তাদের হেফাজতেই মাহসার মৃত্যু হয়। তাকে নির্যাতন করে মেরে ফেলা হয়েছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়ার পর দেশজুড়ে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। তবে, ইরান কর্তৃপক্ষের দাবি, গ্রেফতার হওয়ার পর মাহসা ‘হৃদ্‌রোগে’ আক্রান্ত হয়ে কোমায় চলে যান এবং পরে তার মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) ইরানের নৈতিকতা পুলিশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ দপ্তর। একই সঙ্গে ইরানের নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর সাত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

ইরানে চলমান সহিংস বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। মানবাধিকার সংস্থার দাবি এ পর্যন্ত ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মেহেরপুর কাথুলী রোড walton শোরুমে, ওয়ালটনের সকল পণ্য সুলভ মূল্যে বিক্রয় করা হয়। ওয়ালটন ফ্রিজ, ফ্যান, রাইস কুকার, প্রেসার কুকার, সহ অনেক পণ্য পাওয়া যাচ্ছে। যোগাযোগের ঠিকানা, মেহেরপুর কাথুলি রোড, মোবাইল নাম্বার ০১৪০৩২৫৭৭৭০- ০১৩০৫৪২৪৬২০

০ মন্তব্য
0

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন